Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

 


১। ক্ষুদ্র এবং মাঝারি কৃষকগণ কৃষক সমবায় সমিতি এবং মহিলারা মহিলা সমবায় সমিতির সদস্য হতে পারেন।

২। ক্ষুদ্র কৃষক ও প্রান্তিক চাষী এবং বিত্তহীন পুরষ ও মহিলারা যথাক্রমে পুরষ ও মহিলা দলের সদস্য হতে পারেন।

৩। গ্রামে স্থায়ী ভাবে বসবাস করেন, কায়িক পরিশ্রমের উপর নির্ভরশীল, স্থায়ী আয়ের অন্য কোন উৎস নেই, অন্য কোন সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত নয় বা অন্য কোন প্রতিষ্ঠানের নিকট ঋণী নয় এমন ১৮ থেকে ৫৫ বছরের যেকোন পুরষ ও মহিলা বিত্তহীন পুরষ/মহিলা দলের সদস্য হতে পারেন।

৪। সদস্য পদ গ্রহণের পর দলে যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন সাপেক্ষে ১ জন সদস্য ৩ মাসের  মধ্যে ঋণ পেতে পারেন।

৫। কোন রকম জামানত ছাড়া ২০০৩ এর ক্ষুদ্র ঋণ নীতিমালার আলোকে ঋণ প্রদান করা হয়।

৬। উপকারভোগীরা সামাজিক সচেতনতা ও দক্ষতা বৃদ্ধিকল্পে আয়বর্ধক কর্মকান্ডের উপর প্রশিক্ষণ পেয়ে থাকেন।

৭। আয় বৃদ্ধিমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়নের জন্য উপকারভোগী সদস্য ৫,০০০/= টাকা থেকে ২৫,০০০/= টাকা পর্যন্ত ঋণ পেয়ে থাকেন।

৮। ঋণের যাবতীয় কাগজপত্র উপজেলা বিআরডিবি দপ্তর থেকে সরবরাহ করা হয়ে থাকে।

৯। উপকারভোগী সদস্যগণ ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সঞ্চয় জমার মাধ্যমে নিজস্ব পুঁজি গঠন করে থাকেন।

১০। পরিবারের ২ জন সদস্য(১ জন পুরষ ১ জন মহিলা) পৃথক পৃথকভাবে পুরষ ও মহিলা দলের সদস্য হতে পারেন।


বিআরডিবির সেবা সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা সাথে যোগাযোগ করা যেতে পারে।